1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ঠাকুরগাঁওয়ে হারভেস্ট প্লাস ব্রি ধান জিং (১০০) কর্তন  আবদুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন হাসান ইকবাল  গাঁজা খেতে নিষেধ করায় সাংবাদিককে পেটালো কিশোর গ্যাং আমরা চাইবো দেশে একটি দায়িত্বশীল বিরোধীদল থাকুক: হাসান ইকবাল ঠাকুরগাঁওয়ে মাটি খুঁড়তে গিয়ে ২৪ টি রাইফেল,৩ টি এলএমজি উদ্ধার ঠাকুরগাঁও বালিয়া ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট ও মতবিনিময় সভা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার  স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে হাসান ইকবালের বার্তা ঠাকুরগাঁওয়ে মাদকসহ ২ ব্যবসায়ি গ্রেফতার বেনাপোল স্হলবন্দরে অনিদিষ্ট কালের জন্য পণ্য পরিবহন বন্ধ বাংলাদেশ দ্রুত শ্রীলংকায় পরিনত হতে যাচ্ছে মির্জা ফখরুল ইসলাম

চিরিরবন্দরে ২০ হাজার অসহায়ের পাশে দাড়ানোর লক্ষে “করোনা” স্বেচ্ছাসেবী কমিটি

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : শুক্রবার, ৩ এপ্রিল, ২০২০
  • ৪০৭ জন পড়েছেন

চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃদিনাজপুরের চিরিরবন্দরে “করোনা ভাইরাস” মোকাবিলায় ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে ‘সামাজিক দূরত্ব’ বজায় রাখতে ও জনসমাগম এড়াতে রাতের বেলা খেটে-খাওয়া মানুষের ঘরে ঘরে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া শুরু করেছেন চিরিরবন্দর “করোনা ভাইরাস জনসচেতন স্বেচ্ছাসেবী কমিটি”।

বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) রাত ১২ ঘটিকা থেকে ৩ ঘটিকা পর্যন্ত উপজেলা শহর এলাকা সহ বিভিন্ন এলাকার অসহায় সুবিধাবঞ্চিত পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেছেন তারা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জনসচেতন স্বেচ্ছাসেবী কমিটির আহবায়ক ও উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি সুমন চন্দ্র দাস, যুগ্ন-আহবায়ক ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিফাত শাহ, সদস্য সচিব ও উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সিকিন্দার আলী মির্জা, উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান শাহ, হাবিবুর রহমান (পান্ডে), আশরাফুল আলম, গোলাম সারোয়ার জনি, শাকিল ইকবাল, মোস্তাফিজুর রহমান লাল, সোহানুর রহমান সোহাগ প্রমুখ।

করোনা ভাইরাস জনসচেতন স্বেচ্ছাসেবী কমিটির আহবায়ক সুমন চন্দ্র দাস জানান, আমাদের লক্ষ্য উপজেলার ২০ হাজার অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিত পরিবারের পাশে দাড়ানো। আমরা বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকে আমাদের ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেছি। এই কার্যক্রম পর্যায়ক্রমে চলমান রাখছি এবং আগামীদিনে অব্যাহত থাকবে।উপজেলার প্রতিটি এলাকার অসহায় পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা দিব আমরা। আমাদের এই ত্রাণ তৎপরতা কার্যক্রম থেকে কোনো শ্রমিক, ভিক্ষুক দিনমজুর ও নিম্ন আয়ের মানুষ বাদ পড়বেন না। আমরা প্রত্যেকের ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দিব। কেউ যেনো একাধিবার ত্রাণ সহায়তা না পায় সে ব্যাপারে আমরা সজাগ আছি।

রাতে বেলা ত্রাণ বিতরণ কেন? এব্যপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, দিনের বেলাতে লক্ষ্য করা যায়, ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমের কথা শুনে এলাকায় মানুষের উপস্থিতিতে ‘সামাজিক দূরত্ব’ বজায় থাকে না। আমরা যেহেতু মানুষের ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছিয়ে দিচ্ছি, সেখানে রাতের বেলাতে ত্রাণ সহায়তা দিতে জনসমাগম হয় না। এতে সরকারের যে ‘সামাজিক দূরত্ব’ নিশ্চিত করার নির্দেশনা সেটা নিশ্চিত করা যায়।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা