1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১১:০৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ঠাকুরগাঁওয়ে হারভেস্ট প্লাস ব্রি ধান জিং (১০০) কর্তন  আবদুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন হাসান ইকবাল  গাঁজা খেতে নিষেধ করায় সাংবাদিককে পেটালো কিশোর গ্যাং আমরা চাইবো দেশে একটি দায়িত্বশীল বিরোধীদল থাকুক: হাসান ইকবাল ঠাকুরগাঁওয়ে মাটি খুঁড়তে গিয়ে ২৪ টি রাইফেল,৩ টি এলএমজি উদ্ধার ঠাকুরগাঁও বালিয়া ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট ও মতবিনিময় সভা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার  স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে হাসান ইকবালের বার্তা ঠাকুরগাঁওয়ে মাদকসহ ২ ব্যবসায়ি গ্রেফতার বেনাপোল স্হলবন্দরে অনিদিষ্ট কালের জন্য পণ্য পরিবহন বন্ধ বাংলাদেশ দ্রুত শ্রীলংকায় পরিনত হতে যাচ্ছে মির্জা ফখরুল ইসলাম

ঢাকা থেকে ফেরার পথে নিভলো একটি প্রাণ, দিশেহারা পরিবার

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : বৃহস্পতিবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২০
  • ২৯৫ জন পড়েছেন

কল্লোল রায়, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মো. আব্দুস ছালামের মেয়ে ছাবিনা খাতুন(২৩) ১৬ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে পিকআপ ভ্যানে ঢাকা বিভাগের গাজিপুর থেকে কুড়িগ্রামের উলিপুরে বাড়ি ফেরার পথে রংপুরের পীরগঞ্জে এক সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত হন।

দূর্ঘটনায় নিহতের স্বামী মো. সোহেলকে অহত অবস্থায় উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।এ ঘটনায় পিকআপ ভ্যানের চালক পলাতক,ও মালিকের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের হয়েছে বলে জানা গেছে। রংপুর হাইওয়ে থানার ইনচার্জ মো. ফারুক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।তিনি আরও জানান,রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার বড়দার্গায় রাত ২টার দিকে দিকে একটি পিকআপ ভ্যান একটি ট্রাককে অভারটেক করতে চেষ্টা করলে ট্রাকের পিছন অংশে পিকআপ ভ্যানের সমনের অংশ লাগলে পিকআপ ভ্যানটি ছিটকে পড়ে।এতে মাথায় আঘাত লাগার কারনে ঘটনাস্থলে একজন প্রাণ হারায়।পরে পুলিশ নিহতের স্বামী মো. সোহেলকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে ও ভ্যানসহ মালামাল উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় নিহতের বাবার বাড়ি ও তার স্বামীর বাড়িতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।নিহত ছাবিনার স্বামীর বাড়ি একই উপজেলার ভূতের বাজার নামক এলাকায়।আজ বিকেল ৩.৩০মিনিটের দিকে বাবার বাড়িতে লাশ পৌছালে কান্নায় ভেঙে পড়ে তার পরিবার সহ এলাকাবাসী।এরকম অনাকাঙ্খিত ঘটনার জন্য কেউ প্রস্তুত ছিলোনা বলে জানায় তারা।নিহতের পিতা জানায় “করোনার কারনে ঢাকায় থাকা খুব কষ্ট হচ্ছিল তাদের। আর কখনও ঢাকা যাবেনা তাই পিকআপ রিজার্ভ করে সব মালামাল নিয়ে আসছিলো।এখন আমার সব শেষ।”

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা