1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
রবিবার, ২৯ মে ২০২২, ১২:৪৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ঠাকুরগাঁওয়ে হারভেস্ট প্লাস ব্রি ধান জিং (১০০) কর্তন  আবদুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন হাসান ইকবাল  গাঁজা খেতে নিষেধ করায় সাংবাদিককে পেটালো কিশোর গ্যাং আমরা চাইবো দেশে একটি দায়িত্বশীল বিরোধীদল থাকুক: হাসান ইকবাল ঠাকুরগাঁওয়ে মাটি খুঁড়তে গিয়ে ২৪ টি রাইফেল,৩ টি এলএমজি উদ্ধার ঠাকুরগাঁও বালিয়া ইউনিয়নে উন্মুক্ত বাজেট ও মতবিনিময় সভা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার  স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে হাসান ইকবালের বার্তা ঠাকুরগাঁওয়ে মাদকসহ ২ ব্যবসায়ি গ্রেফতার বেনাপোল স্হলবন্দরে অনিদিষ্ট কালের জন্য পণ্য পরিবহন বন্ধ বাংলাদেশ দ্রুত শ্রীলংকায় পরিনত হতে যাচ্ছে মির্জা ফখরুল ইসলাম

শ্রীপুরে ত্রাণের দাবিতে মানববন্ধন।

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : বুধবার, ২২ এপ্রিল, ২০২০
  • ৫৫৪ জন পড়েছেন

 

গাজীপুর প্রতিনিধিঃগাজীপুরের শ্রীপুরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ঘরে অবস্থান করা স্বল্প আয়ের সাধারণ মানুষ ত্রাণ ও খাদ্য সহায়তার দাবিতে মানববন্ধন করেছে।

বুধবার (২২ই এপ্রিল) বিকেল ৪টার দিকে উপজেলার মুলাইদ গ্রামের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের রঙ্গীলা বাজার এলাকার কয়েকশ’ খেটে খাওয়া দিনমজুর, বিভিন্ন কলকারখানার শ্রমিক ও স্বল্প আয়ের সাধারণ মানুষ মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করে ত্রাণ না পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন। পরে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের আশ্বাসে তারা ঘরে ফিরে যায়।

গার্মেন্টস শ্রমিক মালা জানান, তার স্বামী মাটি কাটার কাজ করেন। করোনা ভাইরাসের জন্য প্রায় এক মাস যাবৎ কাজে যাওয়া বন্ধ। ঘরে মজুদ বলতে যা ছিল তা শেষ হয়েছে। এখন দিনমজুর স্বামী এখন কর্মহীন অবস্থায় ঘরে অবস্থান করছেন। এ অবস্থায় স্বামী-সন্তানসহ খেয়ে না খেয়ে জীবন কাটাচ্ছি।

গৃহিনী মর্জিনা জানান, তার গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জ। শ্রীপুরের রঙ্গীলা বাজার এলাকায় ভাড়া থেকে সে গার্মেন্টেসে কাজ করেন আর স্বামী ঢালাইয়ের কাজ করেন। করোনা শুরুতে বাড়িতে যেতে পারেননি। করোনার কারণে গার্মেন্টস বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরও বাস চলাচল বন্ধ থাকায় গ্রামের বাড়িতে না যেতে পেরে কর্মহীন স্বামীকে নিয়ে ভাড়া বাড়িতে থাকতে হচ্ছে। এখানকার অনেকেই খাদ্য সহায়তা পাচ্ছে, আমরা ভাড়াটিয়া বলে আমাদের খাবার দেয় না, কিন্তু আমরা যে বাড়িতে ভাড়া থাকি সেই বাড়ির মালিকদের খাবার ঠিকই দিচ্ছে।

দিনমজুর মোতাহার হোসেন জানান, আট-দশদিন আগে তালিকায় নাম উঠালেও আমরা এখনো কোনো সহায়তা পাইনি। আমরা ভাড়াটিয়া, কারখানার শ্রমিক, এলাকার ভোটার তালিকায় নাম না থাকলে নাকি আমাদের ত্রাণ দিবে না। আমরা না খেয়ে থাকলেও তাদের কোনো সমস্যা নেই। তাই আমাদের কষ্টের কথা আমাদের সরকারকে জানাতে এসেছি।

এ ব্যাপারে শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ শামছুল আরিফিন জানান, ঘটনার শোনার পরই ওই এলাকার আমাদের একজন প্রতিনিধি পাঠানো হয়েছে। স্বল্প আয়ের সকল মানুষের তালিকা করে খুব দ্রুতই খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেয়া হবে।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা