1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. nasimriyad24@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  3. wpsupp-user@word.com : wp-needuser : wp-needuser
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৪:২৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
মার্চ মাস উপলক্ষে ইতালী আওয়ামী লীগ কাতানিয়া শাখার বার্তা রাজশাহীতে প্রথমবারের মত শুরু হচ্ছে মুসলিম লাইফ স্টাইল এক্সপো-২৪ রাজশাহীর লক্ষীপুরে ওয়ানওয়ে খুলে দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন ভূল্লীতে ঋণের চাপ সইতে না পেরে গলায় ফাঁস দিয়ে প্রধান শিক্ষকের মৃত্যু ঠাকুরগাঁও‌য়ের পু‌লিশ সুপার পেলেন পিপিএম পদক মেয়াদোত্তীর্ণ ভূল্লী প্রেসক্লাবের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা রাজশাহী শাহ্ মখদুম কলেজের শিক্ষক জীবন কুমার ঘোষের পি-এইচ.ডি ডিগ্রী অর্জন ঠাকুরগাঁওয়ে ট্যাপেন্টাডোল ট্যাবলেট সহ দুইজন গ্রেফতার ঠাকুরগাঁওয়ে মন্দিরের ভিত্তি প্রস্তরের উদ্বোধন ফেসবুকে প্রতারণা, ঠাকুরগাঁওয়ে গ্রেফতার যুবক

পার্লার মালিকদের পাশে কেন নেই কসমেটিকস কোম্পানীগুলো?

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : শুক্রবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২০
  • ৬৭২ জন পড়েছেন

ইয়াছির আরাফাত, ইবিঃ

এই বৈশ্বিক দুর্যোগে কিভাবে টিকে থাকবে এবং ঘুরে দাড়াবে সৌন্দর্য শিল্প এ প্রসঙ্গে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন সৌন্দর্য বিষয়ক গবেষক ও লেখক, কসমিটোলজিস্ট মো. এ.কে.এস অনিমিথ বলেন- শুধু সরকারের পক্ষে এ শিল্পের পাশে দাড়ানো সম্ভব নয়। তিনি আরো বলেন,এমন দুর্দিনের কথা কেউ দুঃস্বপ্নেও ভাবেনি, ঘরে-ঘরে যেন বেদনার কাব্য। ক্ষুদ্র ও কুঠির শিল্পের জন্য যে লোনের ঘোষণা হয়েছে তাতে পার্লার মালিকদের জন্য কত পার্সেন্টইবা আর আসবে? বর্তমানে প্রায় চার লক্ষ পার্লার আছে বাংলাদেশে বড়-ছোট-ঘরোয়া ভাবে, নারী কর্মজীবীদের মধ্য ১৮% মেয়েরা পার্লারে কাজ করে,পুরুষদের সেলুন ও পার্লার মিলিয়ে আছে সাড়ে পাঁচ লক্ষ। এ শিল্পের যে বাজেট আসবে তাতে কতজন লোন পাবে? এরপর কাগজপএের ঝামেলাতো আছেই। সব মিলিয়ে ১০% পার্লার বা সেলুন মালিকও এ লোন পাবে কিনা আমার সন্দেহ। বিভিন্ন অ্যাসোসিয়েশন, ব্যক্তি যে উপহার দিচ্ছেন তাতে কতদিনই বা চলবে! এ শিল্পের জন্য সবচেয়ে বড় ভুমিকা রাখা উচিত কসমেটিকস কোম্পানী গুলোর।১০ হাজার কোটি টাকার কসমেটিক মার্কেট বাংলাদেশে। বাংলাদেশে প্রতিমাসে শুধু ফর্সা হবার ক্রিমই সেল হয় প্রায় ৫০০ কোটি টাকার, সাবান ৭২০ কোটি টাকার,আরো কয়েকশত ধরনের পণ্যের হাজার হাজার কোটি টাকার বিক্রি হয়। অধিকাংশ কসমেটিক কোম্পানীর একটি বড় সেল আসে পার্লার বা সেলুন থেকে। দেশে বড়-ছোট কোম্পানী ও ইম্পোর্টেড কোম্পানী মিলে কয়েক হাজার কোম্পানী রয়েছে । বহু কোম্পানীর ৭০%/৮০/ ৯৫% আয় আসে পার্লার ও সেলুন থেকে, কিছু কোম্পানীর ১০০% আয় আসে পার্লার ও সেলুন থেকে। আজ করোনার থাবায় দিশেহারা বিশ্ব , আজ কেন এসব কোম্পানীগুলো এ শিল্পের পাশে নেই? যেখানে কোম্পানীগুলো কত আশ্বাস দিত, স্বপ্ন দেখাতো ও পাশে থাকার গল্পকাহিনী বলতো।

তিনি আরো বলেন, বিশ্বের ৬ষ্ঠতম মুসলিম কসমেটিকস বাজার আমাদের, তবুও এ শিল্পের পাশে কসমেটিকস কোম্পানীগুলো নেই। সবার পাশেতো দাড়াতে হবেনা,শুধু এ শিল্পে অসহায় যারা তাদের পাশে কেন দাড়াবে না এ সব কোম্পানীগুলো? কিছু দেশী কোম্পানী অতি সামান্য দিলেও তা অপ্রতুল । বিদেশী কোম্পানী গুলো বাংলাদেশের বাজার থেকে প্রায় ১০ বিলিয়ন ডলার নিয়ে যাচ্ছে কসমেটিকস সেল করে। তারা কেন কোন অনুদান দিচ্ছেনা? যখন এ দেশের সৌন্দর্য শিল্পিরা সুখের পথ হারিয়ে ফেলছেন। বড়-বড় কোম্পানী গুলো শত কোটি টাকা খরচ করে বিশ্ব সেলিব্রেটিদের দিয়ে বিজ্ঞাপন করে, আজ এ শিল্পের আকাশে যখন কালো মেঘের ঘনঘটা, প্রতিটা পার্লার ও সেলুন মালিক অনিশ্চয়তার সাগরে হাবুডুবু খাচ্ছে তখন ঐ সব বড় কোম্পানীকে বলতে চাই -প্রতি মাসে বিজ্ঞাপনে যে ৪০% ব্যয় করেন সেটা এ শিল্পে ব্যয় করুন এখন।জানি নিঃশ্বার্থ ভাবে তো দিবেন না, তাই স্টারদের দিয়ে শত কোটি টাকার বিজ্ঞাপন না করে, অসহায়দের অনুদান দেবার সময় প্রয়োজনে বিজ্ঞাপন তৈরি করে প্রচার করেন, অনুরোধ তবুওতো দিন, বেঁচে থাক এ শিল্প, বেঁচে থাকেন আপনারাও। নয়তো যাদের দিয়ে আজ আপনাদের ব্যাংক-ব্যালেন্স তাদের দীর্ঘ শ্বাসে হয়তো আপনারাও ভাল থাকবেন না।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা

%d bloggers like this: