1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. nasimriyad24@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ঠাকুরগাঁওয়ে প্রতিমা ভাংচুর: ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেন আ.লীগ নেতা টুলু নাগরপুরে একরাতে ১৬ বাড়িতে খড়ের গাদায় আগুন সাংবাদিক পরিচয়ে ল্যাগেজ সুবিধা না পাওয়ায় বিজিবির ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করার উদ্দেশ্য মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ প্রকাশ ঠাকুরগাঁওয়ে বাবাকে খুন ছেলে থানায় গিয়ে স্বীকারোক্তি ঠাকুরগাঁওয়ে ভূল্লীতে তন্ত্র-মন্ত্রের পাতা খেলা অনুষ্ঠিত রাজশাহীতে কুখ্যাত ভূমি প্রতারক ফারজানা-সহ আটক-৩ একরামুল বাবু’র পিতা’র মৃত্যুতে  যুবলীগের শোক বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের অভিযানে ভারতীয় বিপুল পরিমাণ প্রসাধনীসহ আটক-২ ঠাকুরগাঁওয়ে গাঁজার গাছসহ আটক ১ ঠাকুরগাঁওয়ে ভূল্লীতে “এডিবিবিএস যুব সংঘ” অসহায় শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ

কিশোরগঞ্জে এবার করোনা জয় করে সুস্থ হলেন এক চিকিৎসক

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : সোমবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২০
  • ১২৩ জন পড়েছেন

কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ-

কিশোরগঞ্জ জেলায় রোববার (২৬ এপ্রিল) পর্যন্ত মোট ১৭৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে প্রথম ব্যক্তি হিসেবে করোনা ভাইরাসমুক্ত হয়েছিলেন ইটনা সদর ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুর রশীদ। গত শনিবার (২৫ এপ্রিল) তিনি শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পান।

এবার দ্বিতীয় ব্যক্তি হিসেবে করোনা ভাইরাসমুক্ত হয়েছেন একজন চিকিৎসক। তাঁর নাম ডা. আরিফ আহমেদ জনি। তিনি করিমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত রয়েছেন।

গত ১৩ এপ্রিল ডা. আরিফ আহমেদ জনি করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ শনাক্ত হন। তিনি গত ১৫ এপ্রিল থেকে কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে আইসোলেশনে ছিলেন।

পর পর দুটি নমুনা পরীক্ষায় ডা. আরিফ আহমেদ জনি’র কোভিড-১৯ নেগেটিভ আসায় সোমবার (২৭ এপ্রিল) দুপুর দেড়টার দিকে হাসপাতাল থেকে তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গত ১২ এপ্রিল ডা. আরিফ আহমেদ জনি’র নমুনা পরীক্ষার জন্য ঢাকার আইপিএইচ এ পাঠানো হয়েছিল। পরদিন ১৩ এপ্রিল পাওয়া রিপোর্টে তার কোভিড-১৯ পজেটিভ আসে।

করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর তাকে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।

দিন দিন তাঁর অবস্থার উন্নতি হওয়ায় তার নমুনা পুনরায় পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়। পুনরায় পরীক্ষায় প্রথমবার কোভিড-১৯ নেগেটিভ আসায় আবারও তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়।

পর পর দুটি নমুনা পরীক্ষায় ডা. আরিফ আহমেদ জনি’র কোভিড-১৯ নেগেটিভ আসায় তাকে সোমবার (২৭ এপ্রিল) হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান আরো জানান, শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে বর্তমানে ২৬জন কোভিড-১৯ পজেটিভ রোগী ভর্তি রয়েছেন।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা