1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. nasimriyad24@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৪৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম
নাগরপুরে যমুনার ভাঙন পরিদর্শনে পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র সচিব প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিনে হাসান ইকবালের শুভেচ্ছা নাগরপুরে পূজা উদযাপন পরিষদের নতুন কমিটি নাগরপুরে পূজা উদযাপন পরিষদের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ সম্ভাবনা ও সুযোগে পরিপূর্ণ একটি দেশ: জেনেভায় ভূমিমন্ত্রী ১৫ দফা দাবি মেনে নেওয়াই কাভার্ডভ্যান-ট্রাক মালিক-শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহার নাগরপুরে মাসকলাই বীজ ও সার বিতরণ দূর্গা পুজার শুভেচ্ছা হিসাবে ভারতে প্রথম চালানে ২৩.১৫ মেট্রিক টন ইলিশ রপ্তানি ঠাকুরগাঁও বালিয়াতে ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে চাষীদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ উদ্বোধন।

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী কেন এবং কিভাবে বহিস্কার হলেন

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২৮৫ জন পড়েছেন

ডেস্ক রিপোর্টঃ

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী কেন এবং কিভাবে বহিস্কার হলেন।
জনাব মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী ১৫ আগষ্ট জাতির জনকের হত্যাকাণ্ড নিয়ে অপ্রতিকর বক্তব্য ও বর্তমান আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে মনগড়া বিভ্রান্তমূলক বক্তব্যে সম্পূর্ণ তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাবেক আন্তর্জাতিক বিষষক সম্পাদক ড. সাজ্জাদ হায়দার সাহেবকে।
যারা মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকীর পক্ষ নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টায় লিপ্ত ছিলেন, আপনারা এখন আর সংবাদ মাধ্যমে নিউজ করে ভালো মানুষ সেজে নিজেকে দ্বায়মুক্ত করার কোন সুযোগ নেই ।

জনাব মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী সাহেবের বহিস্কার আদেশ এর নির্দেশ সরাসরি বাংলাদেশ থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাবেক আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড.সাজ্জাদ হায়দার সাহেবের উপর সম্পূর্ণ তদন্তের দ্বায়িত্ব দেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সম্মানীত চেয়ারম্যন শেখ ফজলে শামস পরশ সাহেব,এখানে উল্লেখ করা প্রয়োজন যে, যখন জনাব মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকীর বেফাস কথাবার্তা ইতিহাস বিকৃত বক্তব্যকে কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতৃবৃন্দের দৃষ্টি আর্কষণের জন্য বক্তব্যটি কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের কাছে হস্তান্তর করি, তখন এই বক্তব্যের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য যুবলীগের সম্মানীত চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ সাহেব এই ভিডিওটি সত্যতা যাচায়ের জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাবেক আন্তর্জাতিক সম্পাদক জনাব ড. সাজ্জাদ হায়দার কে নির্দেশ দেন,
তিনি মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী সাহেবের বক্তব্য কতটুকু সঠিক কিনা সেই তদন্তের জন্য আমার কাছে ফোন করেন এবং আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যন শ্রদ্ধেয় শেখ ফজলে শামস পরশ সাহেব এবং সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল সাহেবের পক্ষ থেকে সাবেক আন্তর্জাতিক সম্পাদক ড. সাজ্জাদ হায়দার সাহেব আমার কাছ থেকে এই ঘটনার সত্যতা জানতে চান এবং বিস্তারিত জানার পর সেই বক্তব্যের সত্যতা যাচাইয়ের জন তিনি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের দুইজন উপদেষ্টার সাথে কল করে কথা বলেন, বিভিন্ন সাংবাদিক মিডিয়ার সাথে কল করে কথা বলেন , যুবলীগের তারিকুল হায়দার নাকি বলেছেন এ ভিডিওটি এডিটিং করা, আমি নাকি কোন একটি মহলকে খুশি করার জন্য একটি ভূয়া ভিডিও প্রচার করছি , এটি নাকি একটি ভূয়া ভিডিও ক্লিপস এটি শোনার পর জনাব ড. সাজ্জাদ হায়দার সাহেব তিনি সরাসরি মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকীর সাথে পর পর বিভিন্ন সময় ৫ বার কল করে কথা বলেন, তিনি এই বক্তব্যে দিয়েছেন কি না সেটি নিশ্চিত হন, তার পর তিনি আবার আমাকে কল দেন এবং যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি জনাব ড. সিদ্দিকুর রহমানের সাথে আমার মাধ্যমে কথা বলেন এবং তিনি বলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব শ্রদ্ধেয় ওবায়েদুল কাদের সাহেব নির্দেশ দিয়েছেন যে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি জনাব ড. সিদ্দিকুর রহমান , দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী সাহেবের বহিস্কার পত্র তৈরী করে কেন্দ্রে পাঠানোর জন্য ।
এবং বহিস্কারাদেশ জনাব সিদ্দিকী সাহেবকে মেইল করে পৌঁছানোর জন্য ।
আমার কথা হল যুবলীগ নেতা তারেকুল হায়দারের চৌধুরী বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের মিথ্যা তথ্য দেওয়ার কারণ কি ? এই মিথ্যা তথ্য কেন্দ্রীয় নেতাদের দিয়ে কি বুঝাতে চাচ্ছেন ।
আমি ধন্যবাদ জানাই এ বিষয়টি বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাবেক আন্তজাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. সাজ্জাদ হায়দার সাহেব এ তদন্তটি খুবই শক্তহাতে যথাযথভাবে পালন করেছেন , আমরা জনাব ড. সাজ্জাদ হায়দারের কাছে কৃতজ্ঞ ,কেন্দ্রীয় কমিটি বহিস্কারাদেশের নির্দেশ দেওয়ায় আমরা কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে কৃতজ্ঞ ।
কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্তটি যুক্তরাষ্ট্রে আওয়ামী লীগের আগামীদিনে দায়িত্বশীল নেতাদের ইতিহাস বিকৃতিকৃত বক্তব্যে থেকে দূরে রাখবে।

 

সবচেয়ে হাস্যকর বিষয় যে যুবলীগের আহবায়ক তারেকুল হায়দার চৌধুরী জনাব সিদ্দিকীর পক্ষ নিয়ে এটি মিথ্যা নিউজ বলে প্রচার করলেন, আর যখন কেন্দ্রীয় নেতারা এ বিষয়টি যখন কঠোর হস্তে হস্তক্ষেপ করলেন এবং বহিস্কারের নির্দেশ দিলেন তখন তরিকুল হায়দার কেন এটির প্রতিবাদ করলেন ? তিনি এর আগে প্রতিবাদ না করার কারণ কি ছিল ?

পরিশেষে আপনারা যার প্রতিবাদ করেছিলেন এবং এটি উদঘাটনে সাহায্য করেছিলেন সবার মঙ্গল কামনা করি ।
জয় বাংলা জয়বঙ্গবন্ধু বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনার উপর আস্থা রাখুন ।

হূমায়ুন আহমেদ চৌধুরী
সাধারণ সম্পাদক
কানেকটিকাট স্টেট আওয়ামী লীগ ।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা

You cannot copy content of this page