1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. protidinershomoy@gmail.com : Showdip : Meherabul Islam সৌদিপ
  3. mamunshohag7300@gmail.com : মামুন সোহাগ : মামুন সোহাগ
  4. nasimriyad24@gmail.com : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
  5. protidinershomoy24@gmail.com : Abir Ahmed : Abir Ahmed
  6. shujanthakurgaon@gmail.com : Sujon Islam : Sujon Islam
শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ০৮:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম

কর্তৃপক্ষের অবহেলায়, অবশেষে ভেঙে গেল নাগরপুরে হাসপাতাল সংলগ্ন ঝুঁকিপূর্ণ সেতুটি, যোগাযোগ বন্ধ

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১
  • ২৭০ জন পড়েছেন
dav

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ
টাঙ্গাইলের নাগরপুরে নাগরপুর দরগ্রাম ভায়া ছনকা বাজার সড়কের নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সংলগ্ন সেতুটি অবশেষে ভেঙে পড়েছে। আর এ জন্য সেতু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে দায়ী করছেন সাধারণ মানুষ। সেতুটি ভেঙে যাওয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সড়কসহ পার্শ্ববর্তী মানিকগঞ্জ জেলার দৌলতপুর, সাটুরিয়া ও ঢাকাগামী সড়কে সরাসরি যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। শুক্রবার (৯ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে একটি বালুবাহী ট্রাক ব্রিজের ওপর উঠার পরই ব্রিজের পাটাতন ভেঙে ট্রাকটি আটকে যায়। ফলে বিপাকে পড়ে এ সড়কে চলাচলকারি হাজার হাজার মানুষ। পরে ট্রাকটি সড়িয়ে নিলেও সেতুর উপর দিয়ে যাতায়াত বন্ধ রয়েছে। এরআগে দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সংলগ্ন খালের ওপর নির্মিত ব্রিজটি ঝুকিপূর্ন হয়ে পড়ে থাকলেও সেতু সংশ্লিষ্ট কর্তপক্ষকে কোন পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি।
জানা গেছে, নাগরপুর দরগ্রাম ভায়া ছনকা বাজার সড়কের উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স সংলগ্ন ব্রিজটির দুই পাশের রেলিং ভেঙে এবং মাঝখানে ডেবে গিয়েছিল। এরপরও ওই সড়কে যানবাহনগুলো ঝুকি নিয়ে চলাচল করতো। তবে দীর্ঘদিন যাবৎ ব্রিজটির এমন দশা থাকলেও সংস্কারের কোন উদ্যোগ নেয়নি এলজিইডি কর্তৃপক্ষ। এমনকি সেতুর কোন পাশেই লাগায়নি সতর্কীকরন সাইনবোর্ড। ব্যবস্থা করা হয়নি বিকল্প কোন রাস্তার। সতর্কীকরণ সাইনবোর্ড থাকলে হয়তো এ ধরনের দূর্ঘটনা ঘটতো না বলে জানান এলাকাবাসী।
স্থানীয়দের অভিযোগ, বারবার উপজেলা এলজিইডি কর্মকর্তাদের বিষয়টি জানানো হলেও তাদের উদাসীনতার কারণে ব্রিজটি ভেঙে পড়েছে।
নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আনিছুর রহমান বলেন, রাতে ঝুকিপূর্ন ওই ব্রিজ দিয়ে একটি বালুবাহী ট্রাক পারাপার হওয়ার সময় ভেঙে সেতুর উপর আটকে যায়। এরপর থেকেই ওই সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।
উপজেলা এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান বলেন, যেহেতু খালের পানি প্রবাহ বন্ধ তাই আমরা চেষ্টা করছি দ্রুত সেতুটি ভেঙে সেখানে মাটি ভরাট করে চলাচলের ব্যবস্থা করবো।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page