1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. nasimriyad24@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  3. wpsupp-user@word.com : wp-needuser : wp-needuser
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ১১:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
রাজশাহীর লক্ষীপুরে ওয়ানওয়ে খুলে দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন ভূল্লীতে ঋণের চাপ সইতে না পেরে গলায় ফাঁস দিয়ে প্রধান শিক্ষকের মৃত্যু ঠাকুরগাঁও‌য়ের পু‌লিশ সুপার পেলেন পিপিএম পদক মেয়াদোত্তীর্ণ ভূল্লী প্রেসক্লাবের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা রাজশাহী শাহ্ মখদুম কলেজের শিক্ষক জীবন কুমার ঘোষের পি-এইচ.ডি ডিগ্রী অর্জন ঠাকুরগাঁওয়ে ট্যাপেন্টাডোল ট্যাবলেট সহ দুইজন গ্রেফতার ঠাকুরগাঁওয়ে মন্দিরের ভিত্তি প্রস্তরের উদ্বোধন ফেসবুকে প্রতারণা, ঠাকুরগাঁওয়ে গ্রেফতার যুবক ৭ অভিযোগে ডিডি বাদশার বিদায়, রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডে স্বস্তি ক্যান্ট: পাবলিকে বর্ণীল বসন্ত বরণ ও পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত

নাগরপুরে বিদ্যুতের লাগামহীন লোডশেডিং, দূর্বিসহ জনজীবন

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : রবিবার, ৮ আগস্ট, ২০২১
  • ২৭৮ জন পড়েছেন

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে চলছে বিদ্যুতের লাগামহীন লোডশেডিং। এতে দূর্বিসহ হয়ে উঠেছে জনজীবন। উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতাভুক্ত হওয়ার পরও পিছু ছাড়ছে না লোডশেডিং নামক ব্যাধী। ফলে চরমভাবে ব্যহত হচ্ছে শিক্ষা কার্যক্রম সহ সকল ডিজিটাল সুবিধা।

টাঙ্গাইল পল্লীবিদ্যুত সমিতি নাগরপুর জোনাল অফিস সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালে এ উপজেলাকে সরকার শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আনে। সূত্র আরো জানায় এ জোনাল অফিসের আওতায় বিদ্যুতের চাহিদা রয়েছে ২২ মেগাওয়াট। চাহিদার বিপরীতে সরবরাহ পর্যাপ্ত থাকলেও এর সুফল পাচ্ছেন না সাধারন গ্রাহকরা। এ ছাড়া দুপুরের পর থেকে টানা ২০-২৫ বার লোডশেডিংয়ের কবলে পড়ে সারা উপজেলা। এতে করে চরম বিপাকে পড়েন বিদ্যুত গ্রাহকরা। একদিকে প্রচন্ড গরম আবহাওয়া অপরদিকে বিদ্যুত বিভ্রাট এ যেন গোদের উপর বিষফোঁড়া। অথচ কঠোর লকডাউনে অফিস আদালত, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও কল কারখানা বন্ধ থাকলেও নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুত সরবরাহ সেবা না পেয়ে গ্রাহকরা হতাশ হয়ে পড়েছেন। এছাড়া লো ভোল্টেজসহ খন্ডকালীন বিদ্যুত সরবরাহে আবাসিক বিদ্যুত গ্রাহকরা সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়েছেন। ফলে পানি সরবরাহ সহ নিত্য প্রয়োজনীয় কাজ নিয়ে দূর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষ করে যারা বৈদ্যুতিক চুলায় রান্না করেন তারা বেশি ভোগান্তিতে পড়েছেন। রবিবার দুপুর ২টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কমপক্ষে ৫ বার বিদ্যুত বিভ্রাট ঘটে। বিদ্যুত সংকট নিরসনে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছেন এলাকার সচেতন মহল।

নাগরপুর সদর বাজারের ব্যবসায়ী মোশারফ হোসেন জানান, আকাশে মেঘ দেখলেই বিদ্যুত চলে যায়। এছাড়া রক্ষনাবেক্ষন কাজের অজুহাতে সপ্তাহের দুইদিন সারাদিনব্যাপী বিদ্যুত সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়। কথা হয় অপর ব্যবসায়ী শফিকুল ইসলামের সাথে। তিনি জানান, দিনে কতবার বিদ্যুত যায় সে হিসেব এখন আর রাখিনা কখন আসে সেই অপেক্ষায় থাকতে হয়। বাজারের ক্ষুদ্র উদ্যেক্তা কম্পিউটার প্রশিক্ষক রবিন শিকদার জানান, আমার ব্যবসাটাই মূলত বিদ্যুত নির্ভর। ঘন ঘন লোডশেডিংয়ের ফলে ব্যবসা চালানো কঠিন হয়ে পড়েছে। এছাড়া তীব্র তাপদাহের সাথে লোডশেডিং যোগ হয়ে জনজীবন অতিষ্ঠ করে তুলেছে।

টাঙ্গাইল পল্লী বিদ্যুত সমিতি নাগরপুর জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) মোহাম্মদ মেশবাহুল হক নাগরপুরে কোন লোডশেডিং নাই উল্লেখ করে বলেন, প্রাকৃতিক দূর্যোগ ও রক্ষনাবেক্ষন কাজের জন্য বিদ্যুত বিভ্রাট ঘটে। তবে দ্রুত সময়ের মধ্যে এ সংকটের উত্তোরন ঘটবে।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা

%d bloggers like this: