1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. nasimriyad24@gmail.com : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৩:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
সেনাবাহিনী যেকোনো প্রয়োজনে দায়িত্ব পালনে প্রস্তুত : সেনাপ্রধান প্রাথমিকে হচ্ছেনা বার্ষিক পরীক্ষা: পরের ক্লাসে উঠবে একই রোল নিয়ে বঙ্গবন্ধু’র চিন্তা-চেতনায় কৃষি ও কৃষকের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করছে আ.লীগ–এমপি শেখ আফিল উদ্দিন কালিগঞ্জে ছাত্রদলের আয়োজনে তারেক রহমানের জন্মদিন পালিত লতিফ বিশ্বাসকে সভাপতি পদ থেকে অব্যহতি দেওয়ায় বেলকুচিতে মিষ্টি বিতরণ  কেশরহাটে মেয়র পদ-প্রার্থী রুস্তম আলী গণ-সংযোগ সাংবাদিক সাইফুল’র ভাতিজা জুবায়েদ হোসাইন আদনান এর শুভ জন্ম দিন পালিত রামগঞ্জে ভাটরা ইউনিয়ন শ্রমিকলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের কমিটি অনুমোদন তারেকের জন্মদিনে কালিগঞ্জ ছাত্রদলের আয়োজন সাংবাদিক নুর উল্লাহর বাবার মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

শরীরে চর্বি জমতে দেয়া যাবে না। এটা হৃদরোগের জন্য অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : শনিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২০
  • ৯১ Time View

ডা. মুহাম্মাদ মাহতাব হোসাইন মাজেদঃ সাধারনভাবে পুরুষের কোমরের মাপ ৩৭ ইঞ্চির কম ও মহিলাদের ৩২ ইঞ্চির কম হওয়া উচিত। বিএমআই ২৫ এর চেয়ে যত বেশি হবে, সেটা হৃদরোগের জন্য তততাই ঝুঁকিপূর্ণ। ওজন যত কিলোগ্রাম হবে, তাকে উচ্চতা যত মিটার তার বর্গ দিয়ে ভাগ করে বিএমআই নির্ণয় করতে হয়।

৪০ বছরের বেশি বয়সিদের ক্ষেত্রে, সুষম খাদ্য গ্রহন করতে হবে। প্রাণিজ চর্বি খাওয়া যাবে না, তবে উদ্ভিদ তেল খেতে হবে যেমন- সয়াবিন, সূর্যমুখী, সরিষার তেল ইত্যাদি। সামুদ্রিক মাছ খেতে হবে। বাদাম হৃদরোগের জন্য উপকারী। বাদামের ভেষজ প্রোটিন, ফলিক এসিড, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ফ্লাভোনয়েডস, সেলিনিয়াম ও ভিটামিন-ই হৃদরোগের জন্য অত্যন্ত উপকারী।
দাম্পত্য জীবনে সুখী থাকার চেষ্টা করতে হবে এবং ধর্মকর্মে মনোযোগী হতে হবে।
মানসিক চাপ অর্থাৎ অনিদ্রা, টেনশন, ভয়, ক্রোধ, হতাশা, রাগ, প্রতিশোধ প্রবণতা, হিংসা ইত্যাদি বর্জন করতে হবে।
উচ্চরক্তচাপ ও ডায়াবেটিস থাকলে তা নিয়ন্ত্রনে রাখতে হবে। কমপক্ষে সপ্তাহে এক দিন রক্তচাপ পরীক্ষা এবং মাসে একবার করে ডায়াবেটিস পরীক্ষা করতে হবে।
হোমিওসমাধানঃরোগ নয় রোগীকে চিকিৎসা করা হয় এই জন্য একজন অভিজ্ঞ চিকিৎসক কে ডা.হানেমানের নির্দেশিত হোমিওপ্যাথিক নিয়মনীতি অনুসারে হৃদরোগ চিকিৎসা হোমিওপ্যাথি সহ যে কোন জটিল কঠিন রোগের চিকিৎসা ব্যক্তি স্বাতন্ত্র্য ভিওিক লক্ষণ সমষ্টি নির্ভর ও ধাতুগত ভাবে চিকিৎসা দিলে
আল্লাহর রহমতে চিকিৎসা দেয়া সম্ভব।
হোমিওচিকিৎসাঃঅভিজ্ঞ চিকিৎসক গন প্রাথমিক বাবে যে সব ঔষধ নির্বাচন করে থাকে,ক্র্যাটিগাস,অরম মেটালি কাম,এডোনিস ভাণ্যালিস,অর্জুন,আর্নিকা মন্টেনা,গ্লোনয়িন,ভ্যানাডিয়ম,ল্যাকেসিস,ডিজিটালিস,বেলাডোনা,স্পাই জেলয়া
এনথেলমিয়া,ন্যাজাট্রাইপুডিয়ামস, নাক্স ভুমিকা সহ আরো অনেক ঔষধ লক্ষণের উপর আসতে পারে।

লেখক
ডাঃ মুহাম্মাদ মাহতাব হোসাইন মাজেদ
সম্পাদক ও প্রকাশক, দৈনিক স্বাস্থ্য তথ্য
স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্টা, হিউম্যান রাইটস রিভিউ সোসাইটি কেন্দ্রীয় কমিটি
পরিবেশ ও স্বাস্থ্য সম্পাদক, সবুজ আন্দোলন কার্যনির্বাহী পরিষদ
কো-চেয়ারম্যান হোমিওবিজ্ঞান গবেষণা ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্র
ইমেইলঃdrmazed96@gmail.com
মোবাইল: ০১৮২২-৮৬৯৩৮৯

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page