1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. protidinershomoy@gmail.com : Showdip : Meherabul Islam সৌদিপ
  3. mamunshohag7300@gmail.com : মামুন সোহাগ : মামুন সোহাগ
  4. nasimriyad24@gmail.com : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ০৩:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার জন্মদিন উপলক্ষে নাগরপুরে কেক কাটা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত নড়াইলে প্রথম নারী পুলিশ কর্মকর্তার যোগদান নড়াইলের নব নির্বাচিত পৌর মেয়র আঞ্জুমান আরার দায়িত্ব গ্রহন মানবতার সেবার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত জাপান আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জি. মোঃ জসীম উদ্দিন নাগরপুরে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তৃতীয় শ্রেণি কর্মচারী পরিষদের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন লোহাগড়ায় ফাতেমা হাসপাতাল উদ্বোধন সিরাজগঞ্জে সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের উদ্যোগে শ্রম আইন সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত বেনাপোলে সড়ক দূর্ঘটনায় আহত এতিম লিটনকে বাঁচাতে দেশবাসীর কাছে সাহায্যের আবেদন লোহাগড়ায় ভেষজ উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও প্রীতিভোজ অনুষ্ঠিত বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদের ৮৫তম জন্মবার্ষিকী পালিত

করোনা জয় করে ফিরল ১০ মাসের শিশু

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : রবিবার, ১২ এপ্রিল, ২০২০
  • ১২০ জন পড়েছেন

ভারত থেকে:

চারপাশে মৃত্যুমিছিলের ভীড়ে, যুদ্ধ জয়ের হাসি। করোনাভাইরাসকে পরাস্ত করে, বাড়ি ফিরল একরত্তি শিশু। কোভিড-১৯ সংক্রমণ থেকে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে ওঠা ভারতের দক্ষিণ কন্নড়ের মাত্র ১০ মাস বয়সি ওই শিশুকে শনিবার হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। কর্নাটকে ওই একরত্তিই রাজ্যে সব থেকে কনিষ্ঠ করোনা আক্রান্ত। খবর এই সময়ের। ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, দক্ষিণ কন্নড়ের বন্তওয়াল তালুকের সাজিপানাদু গ্রামের ১০ মাস বয়সি ওই শিশুকে করোনার সংক্রমণ নিয়ে একটি বেসরকরি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। ২৩ মার্চ থেকে দেরালাকাট্টের কেএস হেগড়ে হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছিল। ২৫ মার্চ করোনা টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। মাঝের এই ক’দিন ধরে চিকিৎসা চলার পর, গত ৭ এপ্রিল তার ফের টেস্ট হয়। রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পর ৮ এপ্রিল পুনরায় টেস্ট করা হয়। সেই রিপোর্টও নেগেটিভ আসে।

সরকারি সূত্রের খবর, গত সাত দিনে দক্ষিণ কন্নড়ে নতুন করে কারও শরীরে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়েনি। যে সাতজন এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছিলেন, প্রত্যেকেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। রাজ্যের সব থেকে কনিষ্ঠ করোনা আক্রান্ত ১০ মাসের শিশুটিও বাড়ি ফিরেছে।

এদিকে, গোটা ভারতে এখন পর্যন্ত সাড়ে ৭ হাজারেরও বেশি মানুষের মধ্যে করোনার সংক্রমণ ছড়িয়েছে। শনিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শনিবার বিকেল পর্যন্ত সারাদেশে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ৭ হাজার ৫২৯ হয়েছে। সবমিলিয়ে এখন পর্যন্ত মৃত্যু ২৪২ জনের।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *