1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১১:৪৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
বন্ধ হচ্ছে ঠাকুরগাঁও পৌরসভার মধ্যে টোল আদায় ভারতে জেল খেটে বেনাপোল দিয়ে দেশে ফিরেছে ২৫ জন তরুন তরুনী সিলেটে বর্ন্যার্তদের মাঝে ইঞ্জিনিয়ার মোঃ জসীম উদ্দিন প্রধানের উদ্যোগে উপহার সামগ্রী বিতরণ  ঠাকুরগাঁওয়ে শহীদ জননী জাহানারা ইমামের ২৮তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত ফুলবাড়ীতে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা অনুষ্ঠিত পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে নাগরপুরে নানা কর্মসূচি যুগান্তরের নাগরপুর প্রতিনিধির মায়ের মৃত্যু, দাফন সম্পর্ণ নাগরপুরে ৬শত পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার বেনাপোল বাস টার্মিনালের ভিতর থেকে মালিকবিহীন ১০পিচ স্বর্ণের বার উদ্ধার বেনাপোল হ্যান্ডলিং শ্রমিকদের জন্য বুস্টার ডোজের ভ্যাকসিন বুথ উদ্বোধন

সাতক্ষীরায় করোনা উপসর্গ নিয়ে দু’জনের মৃত্যু, বাড়ি লকডাউন

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : মঙ্গলবার, ২১ এপ্রিল, ২০২০
  • ৩৬৬ জন পড়েছেন

স্টাফ রির্পোর্টারঃ সাতক্ষীরায় জ্বর ও শ্বাস কষ্টসহ করোনার উপসর্গ নিয়ে দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন তালা উপজেলার পাটকেলঘাটার পশ্চিমপাড়ার ওমর আলীর ছেলে পাটকেলঘাটা বাজারের নৈশপ্রহরী আব্দুর রহিম (৬৫) এবং আশাশুনি উপজেলার কাকবাশিয়া গ্রামের মৃত ফজর আলী গাজীর ছেলে ও কয়রার জায়গীরমহল কলেজের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক রেজাউল করিম (৪৭)। মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) ভোরে তাদের মৃত্যু হয়।

সাতক্ষীরা জেলায় একদিনে দুই জনের মৃত্যুর ঘটনায় আতংক ছড়িয়ে পড়েছে।
সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডাঃ হুসাইন শওকত বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য তাদের দু জনেরই নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআরের কাছে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।
আশাশুনি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজা জানান, স্বাস্থ্যকর্মীদের নির্দেশনা ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের তত্বাবধানে জানাজা শেষে কলেজ শিক্ষক রেজাউল করিমের মরদেহ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে। তিনি আরো জানান, ওই কলেজ শিক্ষকের বাড়িটি বর্তমানে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।
তালা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ইকবাল হোসেন জানান, আপাতত ওই নৈশ প্রহরীর বাড়ির সবাই হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকবে। স্বাস্থ্য বিভাগের পরামর্শে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তবে নৈশপ্রহরী আব্দুর রহিমের ছেলে বেল্লাল হোসেন (৩২) জানান, তার পিতা দীর্ঘদিন যাবত শ্বাসকষ্টসহ বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। এজন্য তিনি বেশ কিছুদিন যাবত নৈশপ্রহরীর দায়িত্ব পালন করতে পারেন নি। জ্বর থাকলেও তার পিতা করোনায় মারা যাননি। তার স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে।

অপরদিকে কলেজ শিক্ষক রেজাউল করিম করোনায় মারা যাননি বলে পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য এনামুল হোসেন বলেন, মৃত্যুকালে কলেজ শিক্ষক রেজাউল করিমের জ্বর ছিল। তবে অন্যান্য উপসর্গ ছিল না। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ওই কলেজ শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা