1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১০:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
বন্ধ হচ্ছে ঠাকুরগাঁও পৌরসভার মধ্যে টোল আদায় ভারতে জেল খেটে বেনাপোল দিয়ে দেশে ফিরেছে ২৫ জন তরুন তরুনী সিলেটে বর্ন্যার্তদের মাঝে ইঞ্জিনিয়ার মোঃ জসীম উদ্দিন প্রধানের উদ্যোগে উপহার সামগ্রী বিতরণ  ঠাকুরগাঁওয়ে শহীদ জননী জাহানারা ইমামের ২৮তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত ফুলবাড়ীতে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা অনুষ্ঠিত পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে নাগরপুরে নানা কর্মসূচি যুগান্তরের নাগরপুর প্রতিনিধির মায়ের মৃত্যু, দাফন সম্পর্ণ নাগরপুরে ৬শত পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার বেনাপোল বাস টার্মিনালের ভিতর থেকে মালিকবিহীন ১০পিচ স্বর্ণের বার উদ্ধার বেনাপোল হ্যান্ডলিং শ্রমিকদের জন্য বুস্টার ডোজের ভ্যাকসিন বুথ উদ্বোধন

সঞ্চয়কৃত মাটির ব্যাংকে জমানো টাকা তুলে দিলেন জেলা প্রশাসকের হাতে- মুক্তা

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : শনিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২০
  • ৩৪৮ জন পড়েছেন

সুজন ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি ঃ

ঠাকুরগাঁও জেলার তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী মুক্তা করোনায় কর্মহীন,অসহায় এবং অভুক্ত মানুষের জন্য স্কুলের টিফিনের জমানো টাকা ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসকের ত্রাণ তহবিলে দিয়ে এক নজির সৃষ্টি করলো। ২৫ এপ্রিল
শনিবার দুপুরে সেন্ট মাদার তেরেসা স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী মুক্তা, তার সঞ্চয়কৃত মাটির ব্যাংকের দুই বছরের জমানো টাকা ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. একেএম কামরুজ্জামান সেলিমের হাতে অসহায় দরিদ্রদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দেবার জন্য তুলে দেয়।

এসময় জেলা প্রশাসক ড. একেএম কামরুজ্জামান সেলিম আবেগআপ্লুত হয়ে বলেন, ছোট্ট শিশুর মাটির ব্যংকে জমানো টাকা এভাবে অসহায় দরিদ্য মানুষের জন্য দেওয়াটা আমি অনুকরণীয় বলে মনে করছি। তার কোমল হৃদয়ে যে করোনার বিষয়টি আঘাত করেছে এবং সে এ ক্রান্তিকালে গরিব অসহায়দের জন্য ভেবেছে এটাই বিশাল বড় পাওয়া।
দেশের এই সংকটের মুহুর্তে স্কুল ছাত্রী মুক্তার এই অবদান আমরা সবসময় মনে রাখবো।

ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের আব্দুল লতিফ ও নাসিমা বেগমের একমাত্র কন্যা মুক্তা।

এই সংকটে মেয়ের এমন দানে গর্বিত পিতামাতা। স্কুল ছাত্রী মুক্তা জানান, আমি টিভিতে দেখেছি গরিব মানুষরা অসহায়ভাবে দিন যাপন করছেন। তারা অর্ধাহারে দিন কাটাচ্ছে। তাই আমি আমার দুই বছরের টিফিনের জমানো টাকা ও বিভিন্ন সময় উপহারের জমানো টাকা এসব হতদরিদ্র গরিব মানুষদের জন্য দিয়ে দিলাম।

ছোট্ট শিশুর এমন অবদানে অভিভুত ঠাকুরগাঁও জেলার মানুষ। অনেকেই বলছেন, এটি যেমন গর্বের তেমনি সমাজের বিত্তবানদের জন্যে লজ্জারও বটে। কোমলমতি এই শিশুর দেখানো পথে সমাজের নিম্নআয়ের মানুষদের পাশে বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানান ।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা