1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৫:১৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম
নাগরপুরে  কাভারভ্যান ও ইজিবাইকের মুখোমুখি সংর্ঘষ, নিহত ১ আহত ৩ ভোটারদের নিরাপত্তা চেয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনে আবেদন করলেন চেয়ারম্যান প্রার্থী শার্শায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস পালিত ইতালিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিনে আলোচনা সভা বেনাপোল বন্ধন ব্লাড ফাউন্ডেশন এর ১ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন রাজশাহীতে দৈনিক ডেল্টা টাইমস্”র বর্ষপূর্তি পালিত শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে টানা ৪ দিন আমদানি-রপ্তানি বন্ধ ডিজিটাল মার্কেটিং কি? মার্কেটিং করার ৮ টি সেরা মাধ্যম! বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের অভিযানে গাঁজা সহ আটক-৩ নাগরপুরে সহবতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

বরখাস্ত হওয়া সেই এসআই মানিক খুনের হুমকি দিলেন সাংবাদিকদের

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : শনিবার, ২ মে, ২০২০
  • ৩৬২ জন পড়েছেন

সোহাগ লুৎফুল কবিরঃ
সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া মডেল থানার সাব ইন্সপেক্টর (এসআই) মানিক মিয়াকে ক্লোজ করার খবরটি বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশ হওয়ায় কয়েক জন গণমাধ্যম কর্মীদের খুনের হুমকি দেন এস আই মানিক মিয়া।

উল্লাপাড়ার স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মী সাব্বির মির্জাকে ফোন করে হুমকি দেন এসআই মানিক মিয়া। ফোনের রেকর্ডে মানিক মিয়া বলেন, চাকুরি গেলে আমি তো শেষ নাকি, আমার পরিবার শেষ কিন্তু আমার যে ক্ষতি করবে তার পবিরার যত থাকবে লাশ পড়বে। চাকুরি না থাকলে আমার মাথা ঠিক নাই। একটা খুন, দশটা খুন। আমার চাকুরি না থাকে তাহলে আমি তো কাউকে ছাড়বো না। তখন আমি আমার জীবনের মায়া করবো না। আর যাই, যাই ক্ষতি করেছে তার পরিবার একেবারে নিঃস্ব করে ছেড়ে দিবো তখন। আমার তো জ্ঞান বুদ্ধি থাকবে না তখন। আমি মরছি মরছি, কিন্তু কতজন আমার সাথে মরবে তার ঠিক নাই।

আর ওরা ওখানে থেকে বিভিন্ন সাংবাদিকরা আমাকে ফোন দেয়, স্বাক্ষৎকার চায়, আমি বলি গুষ্টি মারি স্বাক্ষৎকারের তোমরা যা পারবে তা লিখো। কারা কারা লেখছে আমি শুধু নোট করছি। ওর গুষ্টিসহ যদি আমি না শেষ করতে পারি তাহলে আমার নাম মানিক না।

উল্লেখ্য, অভিযুক্ত এসআই ডাক্তারী ছুটিতে থাকাকালীন সময় নিজ থানা ছেড়ে পাশ্ববর্তী থানা তাড়াশ এসে তাড়াশ প্রেসক্লাবের সাংগঠসিক সম্পাদক এম ছানোয়ার হোসেন সাজুকে সঙ্গে নিয়ে তাড়াশ উপজেলার তালম শিবপাড়া এক ব্যাবসায়ীকে হোম কোয়ারেন্টানে রাখার ভয় দেখিয়ে চাঁদা নেওয়ার চাঁদা আদায় করেন। পরে ভুক্তভোগীর স্ত্রী নিজেই উল্লাপাড়া মডেল থানার ওসির নিকট এমন অভিযোগ করেন। পরবর্তীতে বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও ওসির মাধ্যমে অবগত হন। এরপর, দায়িত্ব অবহেলার দায়ে সাব ইন্সপেক্টর মানিককে ক্লোজ করে সিরাজগঞ্জ পুলিশ লাইন্সে প্রত্যাহার করা হয়।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা