1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. nasimriyad24@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  3. wp-configuser@config.com : James Rollner : James Rollner
রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ০১:১১ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ভূল্লীতে গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা আইটি ট্রেনিং নিয়ে ঘরে বসেই ডলার ইনকাম করা সম্ভব, প্রতিমন্ত্রী পলক বীরমুক্তিযোদ্ধা শফিউর রহমান শফির মুক্তির দাবীতে রাজশাহীতে বিক্ষোভ নিউইয়র্কে সিলেট দক্ষিণ সুরমাবাসীর’র বার্ষিক বনভোজন ও মিলনমেলা টিউলিপ সিদ্দিক যুক্তরাজ্যের নগর বিষয়ক মন্ত্রী হওয়ায় রসায়নবিদ আলহাজ্ব ডক্টর মোঃ জাফর ইকবালের অভিনন্দন টিউলিপ সিদ্দিক যুক্তরাজ্যের নগর বিষয়ক মন্ত্রী হওয়ায় হাসান ইকবালের অভিনন্দন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে-এমপি সুজন ঠাকুরগাঁওয়ে শ্বশান ঘাটের বন্ধ রাস্তা খুলে দিলেন এমপি সুজন চারঘাট প্রেসক্লাবের সভাপতিসহ তিন সদস্যকে অব্যাহতি ঠাকুরগাঁওয়ে ভারী বর্ষণে ভেঙে গেছে সড়ক, যাতায়াতে দু*র্ভোগ

লোহাগড়ায় ৮শ পরিবারে মাঝে সবজির বীজ বিতরণ

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : মঙ্গলবার, ৫ মে, ২০২০
  • ৪৯০ জন পড়েছেন

নড়াইল প্রতিনিধি: করোনা পরিস্থিতিতে খাদ্য ও পুষ্টিসংকট মোকাবেলায় লোহাগড়া কৃষি কর্মকর্তার ব্যক্তিগত উদ্যোগে উপজেলার আটশত পরিবারের মাঝে বীজ বিতরণে মাধ্যেমে বসত বাড়িকে পুষ্টিখামারে রূপান্তরের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ মে) সকাল ১১টায় কৃষি কর্মকর্তার অফিস সম্মুখে এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বি এম কামাল হোসেন, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মুনমুন সাহা, লক্ষ্মীপাশা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান কাজী বনি আমিন, বিআরডিবি কর্মকর্তা যতিপ্রকাশ মল্লিক প্রমুখ।

লোহাগড়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সমরেন বিশ্বাস জানান, লোহাগড়া উপজেলার জয়পুর ইউনিয়নের নারানদিয়ার, পৌরসভার রামপুর গ্রামসহ আটশত বাড়ির উঠানে গড়ে তোলা হবে পুষ্টিখামার। সেখানে থাকবে পাঁচ প্রকারের সবজি। এতে করোনাকালে সবজি ঘাটতি দূর হবে। প্রতি ইউনিয়নে ৬০টি থেকে ৮০টি বসত বাড়িতে পাঁচ প্রকারের সবজির উন্নতমানের বীজ, লালশাক, পুঁইশাক, কুমড়া, চিচিংগা, ঢেঁড়স বীজ উপ-সহকারী কৃষি অফিসারদের মাধ্যমে পৌঁছে দেওয়া হবে।

তিনি আরো জানান, বসতবাড়ির পতিত জায়গাগুলোকে চাষের আওতায় নিয়ে আসতে পারলে সংশ্লিষ্ট পরিবারের সদস্যদের কোনো সবজি কিনে খেতে হবে না। ফলে তাদের পারিবারিক পুষ্টি চাহিদা মিটবে সবজি বাগান থেকে।

উপ-সহকারী কৃষি অফিসারদের মাধ্যমে হাতে-কলমে বসতবাড়িতে খামারজাত সার উৎপাদন ও সবজি চাষপদ্ধতি শেখানোর উদ্যোগও নেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

নারান্দিয়া গ্রামের গীতা মল্লিক বলেন, ‘কৃষি অফিস থেকে আমাদেরকে এই যে সবজির বীজ দেওয়া হলো এতে আমরা খুব খুশি। আমাদের ত্রাণ লাগবে না। কৃষিকাজে আমাদেরকে সাহায্য করলেই হবে’।
গ্রামবাসী মনে করেন, এ উদ্যোগ সারা বাংলাদেশে নেওয়া হলে দেশের কোনো গ্রামে কোনো সবজি ঘাটতি থাকবে না।#

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা

%d bloggers like this: