1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:০৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের মৃত্যুতে হাসান ইকবালের গভীর শোক প্রকাশ নড়াইলের ভবানীপুর গ্রামে হত্যা মামলায় একজনের ফাঁসির আদেশ, ৩জনের যাবজ্জীবন দিয়েছেন আদালত নাগরপুরে ইউপি চেয়ারম্যান নৌকা ৬,বিদ্রোহী ২ ও স্বতন্ত্র ৩ হেফাজত মহাসচিব এর মৃত্যুতে শায়খুল হাদীস আল্লামা সিরাজুল ইসলাম পীর সাহেব নেত্রকোণার শোক নড়াইলে ১০ ইউপিতেই স্বতন্ত্রের জয়, নৌকা দুই ইতালিতে কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত অমান্য করে আওয়ামী লীগের সম্মেলন,বহিস্কার হবেন অনেকে ঠাকুরগাঁওয়ে ভূল্লীতে ট্রাকের ধাক্কায় বৃদ্ধ নিহত নাগরপুরে ইউপি নির্বাচনে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা, চাপাতি সহ আটক ১ লোহাগড়া নলদী ইউনিয়নে নৌকা প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা সলিমাবাদ ইউপিতে জনপ্রিয়তার শীর্ষে নৌকার মাঝি অপু

বেলকুচিতে মামলা করায় বাদী পক্ষের লোকজনকে মারপিট, আহত ৪

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : সোমবার, ১১ মে, ২০২০
  • ১৫৪ জন পড়েছেন

সবুজ সরকারঃ
সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলায় দেলুয়া মধ্যেপাড়া গ্রামে হোসেন আলীকে নির্মমভাবে পিটিয়ে আহতের ঘটনায় থানায় মামলা করার অপরাধে আবারও ভাই আসাদুল, ভাগিনা মজিবর রহমান, জুলহাস ও ওয়াহাবকে মারপিট করে আহত করেছে আসামী পক্ষের লোকজন। এসময় আসাদুলের কাছে ভ্যানগাড়ী কেনার জন্য ৪৫ হাজার ও মজিবরের কাছে ব্যবসার ৫৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে তারা।

রবিবার (১০ মে) দুপুরে উপজেলার দেলুয়া বাজারে ঈদগাহ মাঠ সংলগ্নে মারপিটের এ ঘটনাটি ঘটেছে। স্থানীয়রা জানান, প্রতিবেশী মুসা, সাইদুল ইসলাম, হোসেন আলীসহ ৭/৮ জন পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পরিকল্পিত ভাবে হোসেন আলীকে বেধরক মারপিট করে মারাত্মক জখম করে।

এ ঘটনায় হোসেন আলীর স্ত্রী বিউটি বেগম গত ০৪/০৫/২০২০ তারিখে থানায় মামলা দায়ের করেন। এই মামলা করার জের ধরে আবারও বরিবার দুপুরে দেলুয়া গ্রামের মৃত মতিয়ার রহমানের ছেলে আব্দুর রশিদের নেতৃত্বে মৃত বাহাজ আলীর ছেলে কাশেম (৩০) মৃত ছোরহাব হোসেনের ছেলে মুসা আলম (৩৪), ফজল প্রমানিকের ছেলে হোসেন (৪০) ও হাসান আলী (২৮), মৃত তোমোক প্রামানিকের ছেলে বাবলু (৩২) ও লাবু (২৭) ও সুজন (২৪) সহ ১৪-১৫ জন হাতে লাঠি, লোহার রড নিয়ে মামলা করার কারনে হোসেন আলীর পরিবারের লোকজনের উপর বেধরক মারপিট করেন এতে ৪ জন গুরত্বর আহত হন।

আহতরা হলেন, ঐ গ্রামের মৃত ভাষান শেখের ছেলে আসাদুল, ওসমানগণীর ছেলে মজিবর রহমান, মৃত হাসেন আলীর ছেলে জুলহাস ও মৃত মোকছেদ আলীর ছেলে ওয়াহাবকে আহত অবস্থায় বেলকুচি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাদিন আছেন।

এই বিষয়ে তদারকি করার জন্য বেলকুচি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অবস্থাননেয় দেলুয়া মধ্যেপাড়া গ্রামের আসামি বাবুলের স্ত্রী মুক্তি বেগম। সাংবাদিকদের উপস্থিতি দেখলে গোপনে ভিডিও করেন সে। ভিডিওর বিষয়টি জানতে চাইতে কোন সঠিক উত্তর দিতে পারেননি।

হোসেন আলীর স্ত্রী বিউটি জানান, কিছুদিন আগে প্রতিবেশী মুসা আলমসহ ৭/৮ জন পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আমার স্বামীকে বেধরক মারপিট করে মারাত্মক জখম করে।

এ ঘটনায় গত ০৪/০৫/২০২০ তারিখে আমি নিজে বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করি। মামলায় মুসা আলমসহ ১০ জনকে আসামি করা হয়। মামলা করার পর থেকেই বিবাদীরা ভয় ভ্রীতি দেখাছেন। রবিবার সকালে বেলকুচি সার্কের অফিস থেকে মামলাটি তদন্ত করার জন্য আসে তদন্ত শেষ করে পুলিশ চলে যায়। পুলিশ চলে যাওয়ার পরেই রশিদসহ ১৪-১৫ জনের তার বাহিনী নিয়ে আসাদুল, মজিবর রহমানসহ ৪ জনের উপর হামলা চালিয়ে মারপিট করে।

হাসপাতালের বেডে আসাদুল ও মজিবর উপরক্ত টাকার কথা উল্লেখ করে বলেন, ঐখান দিয়ে আমরা হেটে জাচ্ছিলাম অতর্কিত রশিদ নেতৃত্বে ১৪-১৫ জনের একদল এসে আমাদের উপর আক্রমন করে। কাছে রাখা টাকা গুলো ছিনিয়ে নিয়েযায়।

বেলকুচি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, মারপিটের ঘটনায় আমরা এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা