1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. protidinershomoy@gmail.com : Showdip : Meherabul Islam সৌদিপ
  3. mamunshohag7300@gmail.com : মামুন সোহাগ : মামুন সোহাগ
  4. nasimriyad24@gmail.com : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০১:৪৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে নৌকার বিকল্প নেইঃ আব্দুর রহমান আরব আমিরাতে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমেকে ফুলেল শুভেচছা জানালেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন ও স্মৃতি সংসদ ঠাকুরগাঁওয়ে সাংবাদিকের পরিবারের উপর হামলা জি এম কাদেরের ৭৩তম জন্মদিনে হাবিব খান ইসমাইলের শুভেচ্ছা কাপাসিয়ায় মানবতার ঘরে করা যায় করোনা টিকা গ্রহণের রেজিস্ট্রেশন ভাঙ্গায় চাদাঁর দাবীতে মাটি কাটা ভেকু ও ট্রাক ভাংচুরের অভিযোগ রামগঞ্জে দেহলা দিশারী স্পোর্টিং ক্লাবের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে রচনা প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণ সলঙ্গার হাটিকুমরুলে এলিট পার্সেল এন্ড কুরিয়ার সার্ভিসের নতুন শাখার উদ্ভোদন ফুলবাড়ীতে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী শিক্ষার্থীদের মাঝে সাইকেল ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ ফুলবাড়ীতে প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ

কালিয়ায় ৬ মাসেও মিলছে না পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ, ভৌতিক বিলে গ্রাহক হয়রানির অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
  • সময় : মঙ্গলবার, ৩০ জুন, ২০২০
  • ৮৫ জন পড়েছেন

নড়াইলের কালিয়ায় পল্লীবিদ্যুৎ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ভুতুড়ে বিলসহ নানা ভাবে গ্রাহক হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। নতুন সংযোগ পেতে জামানতের টাকা জমা দেয়ার ৬মাসেও সংযোগ মিলছেনা বরং মাসের পর মাস ঘুরিয়ে গ্রাহক হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে। এছাড়া করোনা কালে ভৌতিক বিলের কারণে গ্রাহকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছেন।
দেশের প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী নতুন সংযোগ পাওয়ার ক্ষেত্রে জামানতের টাকা জমা নেয়ার পর ৭ দিনের মধ্যে নতুন সংযোগ স্থাপন বা আবেদনকারির প্রতিকার পাওয়ার কথা থাকলেও উপজেলার শীতলবাটি গ্রামের নূর আলী অভিযোগ, তিনি রাইস মিলে বিদ্যুৎ সংযোগ পাওয়ার জন্য গত বছর ২৯ ডিসেম্বর কালিয়া পল্লীবিদ্যুৎ অফিসে ১৮হাজার ৪০০টাকা জমা দিয়েছেন। সব কার্যক্রম সঠিক ভাবে সম্পন্ন করার পরও তিনি গত ৬মাসেও রহস্য জনক কারণে সংযোগ পাননি।

উপজেলার কলাবাড়িয়া গ্রামের রাসেল শেখ অভিযোগ, বকেয়া বিলের কারণে তার বিদ্যুৎ সংযোগটি বিচ্ছিন্ন করা হলে তিনি বকেয়া বিল পরিষোধ করে গত ২৫ মার্চ পূণঃসংযোগ ফিসহ আবেদন করলেও তিন মাস ধরে তদবিরের পর গত ১৮জুন তার সংযোগটি পূণঃস্থাপন করতে পেরেছেন।

অপরদিকে, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের কাছ থেকে বিদ্যুৎ বিল আদায়ের ক্ষেত্রে গত ফেব্রুয়ারী মাস থেকে সরকার কর্তৃক বিদ্যুৎ বিলের বিলম্ব মাশুল মৌকুফ করাসহ বিদ্যুৎ বিল আদায়ে গ্রাহকদের হয়রানি না করার নির্দেশ উপক্ষো করে ডিজিএম মমিনুর রহমান গত মার্চ মাসের পরিষোধিত বিল মে মাসের বিলের সঙ্গে বকেয়া ও বিলম্ব মাসুলসহ যুক্ত করে গ্রাহকদের মারাত্মক হয়রানি করছেন বলে গ্রাহকদের অভিযোগ রয়েছে। উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে কালিয়ায় এসে ভৌতিক বিল সংশোধন করতে গ্রাহকদের সীমাহীন দুভোর্গে পড়তে হচ্ছে। বর্তমান ডিজিএম মো. মমিনুর রহমান বিশ্বাস কালিয়ায় যোগদানের পর ওইসব অনিয়ম ও গ্রাহক হয়রানি বেড়ে গেছে বলে ভুক্তভোগী অধিকাংশ গ্রাহকদের অভিযোগ।

এ বিষয় কালিয়া পল্লী বিদ্যুৎ কার্যালয়ের ডিজিএম মো. মমিনুর রহমান বিশ্বাস বলেন, ‘২০২১সালের ডিসেম্বর মধ্যে সরকারের ঘোষণানুযায়ী কালিয়া উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়ন করা হবে। তবে বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য যাবতীয় কাগজপত্র ও টাকা জমা দেয়ার পরও কেন ৭ মাসেও সংযোগ দেয়া হচ্ছেনা ? এ প্রশ্নের উত্তরে, তিনি কোন সন্তোষজনক জবাব না দিয়ে মুঠোফোন কেটে দেন।’

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *