1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. nasimriyad24@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  3. wp-configuser@config.com : James Rollner : James Rollner
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ১০:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ঠাকুরগাঁওয়ে দ্বিতীয় দিনে কোটা আন্দোলনে শিক্ষার্থীরা ঠাকুরগাঁওয়ে স্কুল সেনসিটাইজেশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত রাজশাহীতে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের বিক্ষোভ ও পথসভা ঠাকুরগাঁওয়ে আওয়ামী লীগের বৃক্ষ রোপণ ও বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন ঠাকুরগাঁওয়ে ৫শ বৃক্ষরোপন করছেন স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা এ্যাপোলো টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনের এমপি খান আহমেদ শুভর জন্মদিনে জয় হোসেনের উদ্যোগে বৃক্ষ রোপণ, খাদ্য বিতরণ, কোরআন তেলাওয়াত, দোয়া ও মিলাদ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দুর্নীতিবাজ সচিব মুকেশ চন্দ্র বিশ্বাস ! নিখোঁজ সোলায়মান আলীর সন্ধান চায় তার পরিবার চৌধুরী মুখলেসুর রহমানের মায়ের মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের শোক নিখোঁজ আব্দুল আওয়ালের সন্ধান চায় তার পরিবার !

জবি শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া মওকুফে নামমাত্র সুপারিশপত্র!

মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ,জবি প্রতিনিধি
  • সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ জুলাই, ২০২০
  • ৭৩৯ জন পড়েছেন

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া মওকুফ এর সুপারিশপত্র আবেদন প্রক্রিয়ার মধ্যেই সীমাবদ্ধ রেখেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এ নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের দেয়া ওয়েব ঠিকানা থেকে আইডি নম্বর, বাড়ির মালিকের নাম, নাম্বার ও ঠিকানার তথ্য প্রদান করে শিক্ষার্থীরা শুধুমাত্র সুপারিশ পত্রটি সংগ্রহ করতে পারবেন। এরপর এই আবেদনপত্রটি শিক্ষার্থীদের নিজ সুবিধামত ব্যবহার করতে হবে। শিক্ষার্থীদের নিজেদের উদ্যোগেই মেস মালিকের কাছে তা পাঠাতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, বাড়ি ভাড়া মওকুফের জন্য জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এর পক্ষ থেকে সুপারিশ পত্র সংগ্রহ করার ব্যবস্থা করা হয়। আবেদনপত্রটি অনলাইন প্রক্রিয়ায় সম্পন্ন করা যাবে। গত ১৩ জুলাই জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকল্যাণ এর পরিচালক ড. মোহাম্মদ আব্দুল বাকী স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটেও প্রকাশ করা হয়।

উল্লেখ্য যে, প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের আইডি নাম্বার না থাকায় তারা সুপারিশপত্রের আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে পারছে না। মেস ভাড়া সমস্যার সুপারিশপত্রের আবেদনটি মোবাইল ব্রাউজারে করা সম্ভব হয় নি বিধায় নেটওয়ার্ক এন্ড আইটি পরিচালক অধ্যাপক ড. উজ্জল কুমার আচার্য্য এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ সমস্যার সমাধান করে দেন।

মেস ভড়া মওকুফের সুপারিশপত্রের আবেদন পরবর্তী প্রক্রিয়া জানতে চাইলে ছাত্রকল্যাণের পরিচালক ড. মোহাম্মদ আব্দুল বাকী বলেন, আবেদনের কপিটা শিক্ষার্থীরা তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যবহার করবে। তারা যদি মনে করে এটা মেস মালিককে দিতে হবে তাহলে সেটা তারা মেস মালিককে প্রদান করবে। তাদের প্রয়োজন অনুসারে ব্যবহার করবে। আবেদনের কপিটা কি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ মেস মালিকের কাছে পাঠাবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এই কপিটা শিক্ষার্থীরা তাদের সুবিধাজনক কাজে ব্যবহার করবে। বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ মেস মালিককে পাঠাবে না।

এ ব্যাপারে কথা বলতে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টারের সাথে বার বার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয় নি।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা

You cannot copy content of this page

%d bloggers like this: