1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. nasimriyad24@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম
নাগরপুরে যমুনার ভাঙন পরিদর্শনে পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের সিনিয়র সচিব প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিনে হাসান ইকবালের শুভেচ্ছা নাগরপুরে পূজা উদযাপন পরিষদের নতুন কমিটি নাগরপুরে পূজা উদযাপন পরিষদের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ সম্ভাবনা ও সুযোগে পরিপূর্ণ একটি দেশ: জেনেভায় ভূমিমন্ত্রী ১৫ দফা দাবি মেনে নেওয়াই কাভার্ডভ্যান-ট্রাক মালিক-শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহার নাগরপুরে মাসকলাই বীজ ও সার বিতরণ দূর্গা পুজার শুভেচ্ছা হিসাবে ভারতে প্রথম চালানে ২৩.১৫ মেট্রিক টন ইলিশ রপ্তানি ঠাকুরগাঁও বালিয়াতে ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে চাষীদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ উদ্বোধন।

কাজিপুরে জোরপূর্বক ৫ লক্ষ টাকা মূল্যের গাছ কর্তন!

স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • সময় : শুক্রবার, ৯ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৯২ জন পড়েছেন

সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে জোরপূর্বক মালিকানাধীন সম্পত্তি দখল ও প্রায় ৫ লক্ষ টাকা মূল্যের ২৫টি গাছ কেটে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার মনসুর নগর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক রাজমহরের ছোট ভাই আনোয়ার হোসেন (৪৩) ও তার লোকজন কুমারিয়াবাড়ী গ্রামের শফিকুল ইসলামের স্ত্রী শিলা খাতুন (৩৫) এর মালিকাধীন সম্পত্তি দখলসহ ২৫টি গাছ কেটে নিয়েছেন। এ বিষয়ে শীলা খাতুন কাজিপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের ও পরে মামলা করেছেন। অভিযোগে আনোয়ারসহ শালগ্রামের দলুজ্জামানের ছেলে শফিকুল ইসলাম (৩৮) ও ফরিদ হোসেন (৩৩), কুমারিয়াবাড়ী গ্রামের মৃত দুদু কেরানির ছেলে জুয়েল (৩৮) ও জহুরুল ইসলাম, ছালাল গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দীকের ছেলে সোহেল রানা (৩৭) এবং শালগ্রামের মৃত কাসেমের ছেলে চাঁন মিয়া (৫০) মিয়ার নাম উল্লেখ করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) বিকেলে সরেজমিন গিয়ে ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শিলা খাতুন তার পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত জমিতে পূর্বে গাছ লাগিয়েছিলেন। গাছগুলো ইতোমধ্যে অনেক মোটা লম্বা হয়েছে। অভিযুক্তরা পেশীশক্তির জোরে ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে ওই জমি অবৈধভাবে ভোগ দখল করে রেখেছে।সম্প্রতি ওই জমিতে লাগানো প্রায় ৫ লক্ষ টাকা মূল্যের ২৫টি গাছ কেটে নেয় তারা।

ভূক্তভোগী শিলা জানান, “চেয়ারম্যান থেকে শুরু করে মাতব্বরদের কাছে অনেকবার বিচার চেয়েও কোন বিচার পাইনি। থানায় অভিযোগ দেয়ার পর চেয়ারম্যান ও তার লোকজন আমাদের প্রাণনাশের হুমকি, বাড়ি-ঘর ভেঙ্গে দেওয়ার ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। এ জন্যে আমরা আতঙ্কের মধ্যে আছি।” এ সব কিছুই করাচ্ছে ইউপি চেয়ারম্যান রাজমহর এবং অভিযুক্তরা এলাকায় দাপটের সাথে ঘুরে বেড়াচ্ছে বলেও জানান তিনি।

মনসুরনগর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক রাজমহর জানান, “অভিযোগ পেয়ে বিচার করার জন্য বাদীকে খুঁজেছি। কিন্তু তাকে ওই সময় পাইনি। তারা এলাকায় থাকেন না।”

এদিকে অভিযোগের সূত্র ধরে কাজিপুর থানা পুলিশ ওই চেয়ারম্যানকে বিষয়টি সমাধান করার পরামর্শ দিয়েছেন। কিন্তু ঘটনার দুই সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও কোন সুরাহা মেলেনি। পরে শীলা খাতুন গত ২৮ সেপ্টেম্বর সিরাজগঞ্জ আদালতে মামলা দায়ের করেন।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ সংখ্যা

You cannot copy content of this page