1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. protidinershomoy@gmail.com : Showdip : Meherabul Islam সৌদিপ
  3. mamunshohag7300@gmail.com : মামুন সোহাগ : মামুন সোহাগ
  4. nasimriyad24@gmail.com : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
  5. protidinershomoy24@gmail.com : Abir Ahmed : Abir Ahmed
রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সাংবাদিক সেলিম রেজা তাজ ঈদুল ফিতর উপলক্ষে হাবিব খান ইসমাইলের সাথে এক টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে প্রবাসে ও দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের হাজী মুসলিম প্রধান মেমোরিয়াল কল্যাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ ঠাকুরগাঁয়ের কাচারী বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি ১৯৯৭ ব্যাচের উদ্যোগে ঈদ উপহার বিতরণ নাগরপুরে চেয়ারম্যান প্রার্থী রয়েলের উদ্যোগে ২ শত পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার রাজশাহী নগরী বড়বনগ্রাম চকপাড়ায় চলছে অবৈধ পুকুর ভরাট ঈদুল ফিতর উপলক্ষে প্রবাসে ও দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইঞ্জিনিয়ার মোঃ জসীম উদ্দিন প্রধান পবিত্র ঈদ উল ফিতরে সাংসদ ইঞ্জিঃ এনামুল হক’র শুভেচ্ছা বাণী এমপি এনামুলের পক্ষে যুবলীগ নেতা সেজানের ঈদ উপহার বিতরণ হাটিকুমরুল ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি এস এম রওশন সরকার দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন

শার্শার বাগুড়ী প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় গড়ে উঠেছে অবৈধ কসাইখানা

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১
  • ৩৪ জন পড়েছেন

শার্শা প্রতিনিধিঃ যশোরের শার্শা উপজেলার বাগুড়ী প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় মহাসড়কের সাথে বহুবছর যাবত অবৈধ কসাইখানা ও মাংসের দোকান গড়ে তুলে ব্যবসা করে আসছে কিছু অসাধু মাংস ব্যবসায়ী, হচ্ছে ভীষণ পরিবেশ দূষণ।

শার্শার বাগুড়ী প্রভাবশালীদের এবং উপজেলা স্যানিটারি ইনস্পেকটরকে ম্যানেজ করে মহাসড়কের সাথে অবৈধ স্থাপনা গড়ে তুলে ধূলাবালুযুক্ত মাংস বিক্রি করছে হরহামেশা এসব মাংস ব্যবসায়ীরা। অত্রাঞ্চলের বাগআঁচড়া বাজারে বহুবছর ধরে পিলখানা (নির্ধারিত কসাইখানা) ও মাংসের বাজার থাকা স্বত্বেও আবাসিক এলাকায় এবং মহাসড়কের পাশে প্রায় প্রতিদিনই ভোররাতে অসুস্থ-রুগ্ন গরু জবাই করে গোবর ও জবাইকৃত পশুর বর্জ্য ফেলায় এলাকার পরিবেশ ভীষণভাবে দূষিত হচ্ছে। বেওয়ারিশ কুকুর সেগুলো ছড়াচ্ছে পুরো এলাকায়। বিভিন্নভাবে পার্শ্ববর্তী বসতবাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে জীবাণু ছড়াচ্ছে। ফলে ভীষণ দুষিত জীবাণুবাহী পরিবেশে স্থানীয় অধিবাসীদের বসবাস এবং পার্শ্ববর্তী ব্যবসায়ীদের ব্যবসা পরিচালনা করা কষ্টসাধ্য হয়ে যাচ্ছে। এছাড়া মাংস বিক্রি শুরু থেকে শেষ না হওয়া অবধি উচ্চ-শব্দে মাইক বাজিয়ে শব্দ দূষণ করে, ফলে অত্রাঞ্চলে মানুষের জীবনযাপন ও ব্যবসা পরিচালনা করা দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। বেওয়ারিশ কুকুরের আক্রমণের ভয়ে সবসময় আতঙ্কিত থাকে পথচারী, কোমলমতি শিক্ষার্থী ও স্থানীয় শিশুরা।

এবিষয়ে শার্শা উপজেলার স্যানিটারি অফিসার শেফালী ম্যাডামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আপনি এবিষয়ে বাজার কমিটিকে বলেন। আমি কত দেখবো”।
স্যানিটারি অফিসার একথা গুলো বলে পুরোপুরি দায়িত্ব এড়িয়ে যান। যেন এটা তার দায়িত্বের মধ্যে পড়েনা। অথচ তিনি ঠিকই বহুবছর যাবৎ এসব অবৈধ পরিবেশ দূষণকারী কসাইখানা ও মাংস ব্যবসায়ী মালিকদের পরিবেশের ছাড়পত্র দিয়ে যাচ্ছেন। তাহলে কিসের বিনিময়ে তিনি বহুবছর তাদের পরিবেশের ছাড়পত্র দিয়ে আসছেন, প্রশ্ন জনমনে।

জনসাধারণের প্রতি সুুদৃষ্টি রেখে পিলখানা ব্যতীত পশু জবাই নিষিদ্ধ সহ অবিলম্বে এইসব অবৈধ কসাইখানা ও মাংসের দোকান উচ্ছেদ করে এলাকাবাসীকে জীবাণুমুক্ত স্বাস্থ্যকর সুন্দর পরিবেশ উপহার দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন শান্তিকামী সচেতন এলাকাবাসী।

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *