1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. nasimriyad24@gmail.com : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
করোনা সংক্রমন মোকাবেলায় পরিকল্পনা গ্রহনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন  মির্জাপুরে ২৫ নভেম্বর থেকে ৩ দিন ব্যাপী তাফসীরুল কোরআন মাহফিল হিংসামুক্ত বিশ্ব সম্প্রীতি দিবস’ ২০২০ উদযাপন সম্প্রীতি ও বন্ধুত্ব স্থাপনেই পৃথিবীতে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হবে : বাংলাদেশ বন্ধু সমাজ সেনাবাহিনী যেকোনো প্রয়োজনে দায়িত্ব পালনে প্রস্তুত : সেনাপ্রধান প্রাথমিকে হচ্ছেনা বার্ষিক পরীক্ষা: পরের ক্লাসে উঠবে একই রোল নিয়ে বঙ্গবন্ধু’র চিন্তা-চেতনায় কৃষি ও কৃষকের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করছে আ.লীগ–এমপি শেখ আফিল উদ্দিন কালিগঞ্জে ছাত্রদলের আয়োজনে তারেক রহমানের জন্মদিন পালিত লতিফ বিশ্বাসকে সভাপতি পদ থেকে অব্যহতি দেওয়ায় বেলকুচিতে মিষ্টি বিতরণ  কেশরহাটে মেয়র পদ-প্রার্থী রুস্তম আলী গণ-সংযোগ সাংবাদিক সাইফুল’র ভাতিজা জুবায়েদ হোসাইন আদনান এর শুভ জন্ম দিন পালিত

এ কেমন মন্ত্রণালয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী?

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : বুধবার, ২০ মে, ২০২০
  • ৪৮ Time View

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনি জানেন কিনা জানি না, স্বাস্থ্য অধিদফতর ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অসত্য আর ভ্রান্ত তথ্যের বেড়াজালে সারাদেশকে আবদ্ধ করে রেখেছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় যা খুশি তাই করছে, স্বাস্থ্যকর্মীরা নিশ্চিত মৃত্যু জেনেও কেউ প্রশ্ন করতে গেলে তাকে শাস্তির মুখোমুখি হতে হচ্ছে, এ কেমন মন্ত্রণালয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী?

আপনি যাদেরকে সম্মুখ সমরের যোদ্ধার সম্মান দিয়েছেন, তারা কাড়ি কাড়ি অর্থ না চেয়ে সামান্য সুরক্ষা সরঞ্জাম চেয়েছে কিন্তু তাদেরকে একদল জানোয়ার মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছে? আপনি ব্যবস্থা নিন…আপনি ঐ জানোয়ারদের শাস্তি দিন…

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি জানেন কিনা জানি না, মাস্কের মান নিয়ে প্রশ্ন তোলায় রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতালের পরিচালককে ওএসডি করা হয়েছে—এই কদিন আগে একই কারণে আরো ১০ জন ডাক্তারকে শোকজ করা হয়েছে। একজনকে তো এক সপ্তাহের ব্যবধানে দুই হাসপাতালে বদলি করা হয়েছে।

যদি আমাদের মাস্ক, পিপিই কেনার সামর্থ্য না থাকতো, তবুও প্রত্যেকটি ডাক্তার মৃত্যু জেনেও সেবা করে যেত নিশ্চিত। কিন্তু একদল মুনাফাখোর ও প্রতারক ডাক্তার-নার্সদের জীবন নিয়ে খেলছে তবে কেন ডাক্তার-নার্সরা মৃত্যু পথ বেছে নিবে?

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গণভবনে সেদিন আপনি নিজেই মাস্কের মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন, আপনি যথাযথ কর্তৃপক্ষকে বিষয়টা খতিয়ে দেখতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। তিন কার্যদিবস থেকে আজ দশ দিন হয়ে গেল সেই তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন আলোর মুখ দেখে নাই।

বিশ্বাস করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, স্বাস্থ্যখাতের এই হায়েনারা করোনা দুর্যোগ বা মহামারীকে ব্যবসার মৌসুম বানিয়েছে। এরা স্বাস্থ্যকর্মীদের এন-৯৫ মাস্কের নামে সাধারণ মাস্ক দিয়ে আবার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে বাঁচাতে উঠেপড়ে লেগেছে, বিবৃতি দিচ্ছে। এরা ১২ লাখ পিপিই বিতরণ দেখায় কিন্তু স্বাস্থ্যকর্মীদের মাঝে ৮ লাখ পিপিই বিতরণ করে, বাকি ৪ লাখের হিসাব দেখাতে পারে না।

আপনি ৪০০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেন কিন্তু এই পিশাচেরা ল্যাবরেটরির জিনিসপত্র, পিপিই, কিট, বিভিন্ন ধরনের ওষুধ কেনার নামে ভাগাভাগি করে খায় ২২কোটি টাকার হিসাবও দেখাতে পারে না। সারা বছর এভাবেই ভাগেযোগে বাজেট বরাদ্দের হাজার হাজার কোটি টাকা হরিলুট করে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ব্যবস্থা নিন, প্লিজ এখনি ব্যবস্থা নিন, এই কদিনেই ভুল মাস্কের কারণে ডাক্তার, নার্স ও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীসহ ৮৫৬ জনের বেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। তখন হাজার হাজার অনভিজ্ঞ ডাক্তার ও নার্স নিয়োগ দিয়ে সামলানো যাবে না, অভিজ্ঞ যারা আছে তাদের মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা করুন।

এনায়েত শাওনের ফেসবুক থেকে

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page