1. admin@protidinershomoy.com : admin :
  2. nasimriyad24@gmail.com : বার্তা সম্পাদক : বার্তা সম্পাদক
বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৫৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
করোনা সংক্রমন মোকাবেলায় পরিকল্পনা গ্রহনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন  মির্জাপুরে ২৫ নভেম্বর থেকে ৩ দিন ব্যাপী তাফসীরুল কোরআন মাহফিল হিংসামুক্ত বিশ্ব সম্প্রীতি দিবস’ ২০২০ উদযাপন সম্প্রীতি ও বন্ধুত্ব স্থাপনেই পৃথিবীতে শান্তি প্রতিষ্ঠিত হবে : বাংলাদেশ বন্ধু সমাজ সেনাবাহিনী যেকোনো প্রয়োজনে দায়িত্ব পালনে প্রস্তুত : সেনাপ্রধান প্রাথমিকে হচ্ছেনা বার্ষিক পরীক্ষা: পরের ক্লাসে উঠবে একই রোল নিয়ে বঙ্গবন্ধু’র চিন্তা-চেতনায় কৃষি ও কৃষকের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করছে আ.লীগ–এমপি শেখ আফিল উদ্দিন কালিগঞ্জে ছাত্রদলের আয়োজনে তারেক রহমানের জন্মদিন পালিত লতিফ বিশ্বাসকে সভাপতি পদ থেকে অব্যহতি দেওয়ায় বেলকুচিতে মিষ্টি বিতরণ  কেশরহাটে মেয়র পদ-প্রার্থী রুস্তম আলী গণ-সংযোগ সাংবাদিক সাইফুল’র ভাতিজা জুবায়েদ হোসাইন আদনান এর শুভ জন্ম দিন পালিত

ইরাক ও আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা কমানোর নির্দেশ

সংবাদ দাতার নাম
  • সময় : বুধবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৫ Time View

মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ওব্রায়েন বলেছেন, ইরাক ও আফগানিস্তান থেকে তার দেশের সেনা সংখ্যা কমানোর নির্দেশ জারি করা হয়েছে। মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন তিনি।

 

এ নিয়ে রবার্ট ওব্রায়েন বলেন, ‘ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টোফার মিলার এ নির্দেশ জারি করেছেন।’

সম্প্রতি সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপারকে বহিষ্কার করার পর মিলারকে তার স্থলাভিষিক্ত করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। দেশটির গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, এসপার আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা সংখ্যা কমানোর বিরোধী ছিলেন।

 

মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা আরও বলেছেন, প্রতিরক্ষামন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী ২০২১ সালের ১৫ জানুয়ারি নাগাদ ইরাক ও আফগানিস্তানে মোতায়েন মার্কিন সেনা সংখ্যা ৫ হাজার জনে নামিয়ে আনা হবে। আফগানিস্তানে বর্তমানে ৪ হাজার ৫শ’ মার্কিন সেনা রয়েছে এবং ইরাকে রয়েছে ৩ হাজার ২শ’ জন। ক্রিস্টোফার মিলারের নির্দেশে আফগানিস্তানে মোতায়েন মার্কিন সেনাসংখ্যা ৪ হাজার ৫শ’ থেকে ২ হাজার ৫শ’ জনে এবং ইরাকে মোতায়েন সেনা সংখ্যাও ৩ হাজার ২শ’ থেকে কমিয়ে ২ হাজার ৫শ’ জনে নামিয়ে আনার কথা বলা হয়েছে।

 

মার্কিন ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী এ সম্পর্কে বলেছেন, ইরাক ও আফগানিস্তানের যুদ্ধের সফল ও দায়বদ্ধ সমাপ্তির যে নীতি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গ্রহণ করেছেন তা বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

 

ওব্রায়েন বলেছেন, ইরাক ও আফগানিস্তানে অবশিষ্ট মার্কিন সেনারা এসব দেশের মার্কিন দূতাবাসসহ অন্যান্য স্থাপনার নিরাপত্তা রক্ষার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবে।
খবর পার্সটুডে

সংবাদটি আপনার সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার দিন

এই ক্যাটাগরীর আরোও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page